বাগেরহাটের দশানি ট্রাফিক মোড় থেকে রামপালের গিলাতলা সড়কের কাড়াপাড়া আশ্রমের মাঠের পাশ থেকে শুরু হওয়া ১২ ফুট প্রস্থের পিচ ঢালা সড়কটি খুলনা-বাগেরহাট মহাড়কের বাদামতলা নাম স্থানে এসে মিলিত হয়েছে। কাড়াপাড়া এলাকার লোকজন সহজে মহাসড়কে আসার জন্য ওই সড়কটি ব্যবহার করেন। পিচঢালা সড়ক হওয়ায় যানবাহনও চলাচল করে অনেক। বাগেরহাট সদর উপজেলার কাড়াপাড়া ইউনিয়নের বাদামতলা-আশ্রমের মাঠ সড়কের উপর ৪টি বৈদ্যুতিক খুটিতে প্রতিনিয়ত ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে যানবাহন চালক ও পথচারীদের। সড়কের উপর থেকে খুটি স্থানান্তরের জন্য স্থানীয়দের জোর দাবি থাকলেও টনক নড়েনি বাগেরহাট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির।


সোমবার (২২ জুলাই) বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আশ্রমের মাঠের পাশ থেকে সড়কের একটু ভিতরে ঢুকেই সড়কের মাঝখানে পল্লী বিদ্যুতের বৈদ্যুতিক খুটি রয়েছে। ছোট এই সড়কের মাঝখানে অন্তত্য ৪টি বৈদ্যুতিক খুটি রয়েছে, যার ফলে যানবাহন চলাচলে ব্যাপক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়াও কয়েকিট খুটি রয়েছে যা সড়কের গা ঘেষে রয়েছে।


বাদামতলা এলাকার রিজভী আহমেদ বলেন, আমার বাড়ির সামনের সড়কের মাঝখানে একঠি খাম্বা রয়েছে। সব সময় আতঙ্কে থাকি কখন খাম্বার সাথে দূর্ঘটনা ঘটে। কারণ এই সড়কে কোন আলো (লাইট) নেই। আর দূর্ঘটনা ঘটলে প্রাথমিক ভোগান্তি আমাদেরকেই পোহাতে হয়। যত দ্রুত সম্ভব রাস্তার উপর থেকে পল্লী বিদ্যুতের খুটিগুলো সরানো প্রয়োজন।


রিকশা চালক মিরাজ শেখ ও মোঃ নুহু শেখ বলেন, “সড়কের মাঝ খানে খুটি থাকায় দুই দিক থেকে দুটি গাড়ি আসলে যাওয়া যায়না। প্রচন্ড রকম বিপাকে পড়তে হয় যাত্রীদের নিয়ে। ভয়ে থাকি দূর্ঘটনার। সাইকেল চালক নাহিদ ফরাজী বলেন, দিনে যেমন তেমন, রাতে এই রাস্তা দিয়ে সাইকেল চালিয়ে যেতে খুব সমস্যা হয়। লাইট না থাকায় কয়েকদিন বিদ্যুতের খুটির সাথে ধাক্কাও খেয়েছি।” 

মটর সাইকেল চালক তানজীম আহমেদ বলেন, ” ছোট সড়ক। তার মাঝখানে আবার কয়েকটি বৈদ্যুতিক খুটি। চলাচলে কিযে ভোগান্তি হয় সাধারণ মানুষের তা বলে বোঝানো যায় না।” 
বাগেরহাট পল্লী বিদুৎ সমিতির মহাব্যবস্থাপক মোঃ জাকির হোসেন জানান, পল্লী বিদ্যুৎ সাধারণত সড়কের উপর বৈদ্যুতিক পোল স্থাপন করে না। এটা হয়ত সড়ক সম্প্রসারণের ফলে বৈদুতিক পোলগুলো সড়কের মাঝখানে চলে গেছে। আমি বিষয়টি খোজ নিচ্ছি। সড়কে যাতায়াতে সমস্যা হলে আমরা অবশ্যই পোলগুলো স্থানান্তর করা হবে।

Kajal Paul is one of the Co-Founder and writer at BongDunia. He has previously worked with some publishers and also with some organizations. He has completed Graduation on Political Science from Calcutta University and also has experience in News Media Industry.

Leave A Reply